বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৭, 6:16
শরীয়তপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মা-মেয়ের হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষ
এস এম মজিবুর রহমান, শরীয়তপুর প্রতিনিধি । পদক্ষেপনিউজ
Published : Tuesday, 11 October, 2016 at 1:53 PM, Count : 16306
শরীয়তপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মা-মেয়ের হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

শরীয়তপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন পিটিয়ে মা-মেয়ের হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত মা- মেয়েকে উদ্ধার করে পালং মডেল থানা পুলিশ শরীয়তপুর সদর হাসাপালে ভর্তি করে। পরে তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি।
আহত লিপি আক্তার ও পালং মডেল থানা সূত্রে জনা গেছে, শরীয়তপুর পৌরসভার কাশাভোগ গ্রামের মোস্তফা বেপারী গং ও একই গ্রামের মৃত মাহাবুবুল বাশারের স্ত্রী রাশিদা বেগম (৬৫) এর সাথে সাড়ে ৩ শতক জমি নিয়ে দীর্ঘ দিন থেকে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে গত ৪ অক্টোবর রাশিদা বেগম শরীয়তপুর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রট আদালতে একটি মামলা দায়ের করে। আদালত উভয় পক্ষের শান্তি শৃংখলা বজায় রাখা মর্মে পালং মডেল থানাকে একটি নোটিশ জারি করে। পালং মডেল থানা পুলিশ উভয় পক্ষকে শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী নোটিশ প্রদান করে। এর পর আজ মঙ্গলবার আনুমানিক সকাল সাড়ে আট টার দিকে মোস্তফা বেপারী ও তার লোকজন বিরোধপূর্ণ ওই জায়গায় সীমানা প্রাচীর নির্মান শুরু করলে রাশিদা বেগম তাদের বাধা দেয়। তখন উত্তেজিত হয়ে প্রতিক্ষ মোস্তফা বেপারী, আজাদ বেপারী ও আমির বেপারীসহ তাদের দলবল আয়শা বেগম  এবং তার দুই মেয়ে লিপি আক্তার ও শাহিনুর বেগমকে ইট ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে। খবর পেয়ে পালং মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে চলমান কাজ বন্ধ করে আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে আহত মা-মেয়েদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করে।

শরীয়তপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মা-মেয়ের হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

আহত শাহিনুর বেগম বলেন- সকালে অনেক লোকজন নিয়ে মোস্তফা বেপারী, আজাদ বেপারী, আমির বেপারী ও তাদের লোকজন আমাদের জায়গায়  জোরপুর্বক সীমানা প্রাচীর নির্মান শুরু করলে আমার মা তাদেরকে বাধা দেয়। তখন তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমার মা আমাদের দুই বোনের উপর চরাও হয়ে ইট ও লাঠি দিয়ে বেদম প্রহার করে আমার মা ও বোনের হাত-পা ভেঙ্গে ফেলে। তাদের অবস্থা সংকটাপন্ন। মোস্তফা বেপারীরা আদালতের নির্দেশনা ও থানার নোটিশ উপপেক্ষা করে জোরপুর্বক আমাদের জায়গায় সীমানা প্রাচীর নির্মান করে জায়গা দখল করছে। আমরা এর উপযুক্ত বিচার চাই।

প্রতিপক্ষ মোস্তফা বেপারী বলেন- তার নিজস্ব ক্রয়কৃত জমিতে সীমানা প্রাচীর নির্মান শুরু করলে রাশিদা বেগম ও তার মেয়েরা দা ও বটি নিয়ে তাদের উপর হামলা করে। এতে আমি ও আমার ছোট ভাই আজাদ বেপারী আহত হয়। আজাদকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে। আমি কারও জমির উপর সীমানা প্রাচীর নির্মান করছি না। পৌরসভার অনুমতি সাপেক্ষে নিজস্ব জায়গায় সীমানা প্রাচীর নির্মান করছি। আমরা অন্য কারও জায়গা জোরপুর্বক দখল করছি না, আমাদের জায়গায়ই সীমানা প্রাচীর নির্মান করছি।
পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: খলিলুর রহমান বলেন- ওই জায়গাটি নিয়ে আমারা আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী শান্তি শৃংখলা বজায় রাখার জন্য উভয় পক্ষকে নোটিশ দিয়েছি। মারামারির খবর শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্বার করে হাসপাতালে পাঠায়। এ বিষয়ে কোন পক্ষই এখনো পর্যন্ত মামলা করতে আসেনি। মামলা হলে আমরা পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।




« পূর্ববর্তী সংবাদপরবর্তী সংবাদ »


এই বিভাগরে আরও খবর...
সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত
একটি ইওজি প্রকাশনা
সম্পাদক : জান্নাতুন নিসা
বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৮ম তলা (৮০৫), রোজভিউ প্লাজা লিমিটেড
১৮৫ বীর উত্তম সি আর দত্ত রোড, ঢাকা-১২০৫
ফোন : +৮৮০১৫৫৮০২৯৮৩৭, ০১৬৭১১৩৯৪৩০
e-mail : padakkhepnews@gmail.com, info@padakkhepnews.com
Developed & Maintenance by i2soft
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত পদক্ষেপনিউজ